হালাল পারফিউম নাকি হারাম পারফিউম?

হালাল পারফিউম নাকি হারাম পারফিউম! এ আবার কোন গোড়ামী? আশ্চর্য! বড়ই আশ্চর্য! আমাদের ফেসবুক পেজে এসে অনেকেই জিজ্ঞেস করে আপনাদের কাছে কি হালাল পারফিউম আছে? এই ধরনের প্রশ্ন শুনে মনে খচ্ করে লাগে “এই সেরেছে! – আমরা কি তাহলে হারাম পারফিউম বিক্রি করছি?” আমরা এতদিন ধরে জেনে এসেছি আমরা হালাল ব্যবসা করছি অথচ মানুষজন এসে জিজ্ঞেস করছে হালাল পারফিউম আছে কিনা আমাদের কাছে! তার মানে আমরা কি তাহলে এতদিন ধরে হারাম ব্যবসা করে আসছি? আসতাগফিরুল্লাহ!

halal-perfume-naki-haram-perfume

আবার অনেকেই এসে বলে আপনাদের কাছে কি অ্যালকোহল ফ্রি পারফিউম আছে? অ্যালকোহল ফ্রি পারফিউম আছে কিনা সেটার উত্তর দিতে আমাদের কোন বাধা নেই, আমরা সাধারণত বলে দিই – “না ভাই আমরা এখনও আতরবিশিষ্ট কোন পারফিউম বা শুধুমাত্র OUD পারফিউম বিক্রি করছি না”। কিন্তু যদি কেউ এসে জিজ্ঞেস করে “ভাই আপনাদের কাছে হালাল পারফিউম আছে?” তখন মনে খচ্ করে লাগে, অনেক কথা বলতে ইচ্ছে হয় আপনাকে, আরে ভাই আপনাকে তো আমি চিনি কিন্তু বলতে পারি না। কিভাবে বলি? আপনি তো আমার কথা শুনবেনই না, আমার কথা আপনি মানবেনই না। তো ঠিক আছে, হালাল পারফিউম আমাদের কাছে নেই, আপনি যাকে হালাল জানেন আমরা তাকে হালাল জানি আর আপনি যাকে হারাম জানেন আমরা তাকে হালাল জানি! কি বুঝতে পারলেন না তো! আপনি হয়ত মনে করেন যে, যেসব পারফিউমে অ্যালকোহল মিশ্রিত আছে সেসব পারফিউম হারাম আর যেসব পারফিউমে অ্যালকোহল নেই সেইসব পারফিউম হালাল।

halal-perfume-haram-perfume

এই ধারনাটি কোথা থেকে এসেছে? আরে সর্বনাশ! পিছনের ইতিহাস ঘাটতে গিয়ে দেখি, ইহুদি, খ্রীষ্টান আর হিন্দুরা হালাল পারফিউম এবং হারাম পারফিউম তাদের ওয়েবসাইটে সুন্দরভাবে সেকশন করে রেখেছে। তারা স্পষ্টকরে সেকশন করে দেখিয়েছে যে, এটা হচ্ছে হালাল পারফিউম এর সেকশন। তার মানে ওই সেকশনের যত পারফিউম আছে তার সবকটিই হালাল পারফিউম আর অন্য সেকশনের যা পারফিউম আছে তার সবগুলোই হারাম পারফিউম! ব্যপারটা তো সেটায় দাঁড়ায় তাই না! একজন মুসলমান যে কিনা কুরআন শরীফ এবং হাদিস সম্পর্কে ভালভাবে জানে না বা কুরআন হাদিস ওই ভাবে তাঁর পড়া নেই, তাঁর মনে তো এই প্রশ্ন আসতেই পারে, যে পারফিউমগুলো হালাল সেকশনে আছে ওই পারফিউমগুলোই আমার ব্যবহারের জন্য ভাল আর অন্যান্য সেকশনে যেই পারফিউমগুলো আছে সেগুলো আমার জন্য ব্যবহার করা হারাম।

তাঁরা ভেবে নিতে পারে পারফিউমে অ্যালকোহল থাকা মানে ওই পারফিউম হারাম আবার কোন পারফিউমে অ্যালকোহল যদি না থাকে তাহলে সেই পারফিউম হালাল! আমরা আসলেই আশ্চর্য হই এই ভেবে যে, এটা আবার কোন ধরনের গোড়ামি? আপনি কোথায় পেলেন পারফিউমে অ্যালকোহল থাকা মানে ওই পারফিউম হারাম? আপনি কি পারফিউম গিলে খাবেন? অ্যালকোহল আছে মদে, আপনার জন্য মদ খাওয়া হারাম, শরীরের ক্ষতি করে এমন জিনিস সেবন করা হারাম, যে সিগারেটকে মাকরুহ্ বলে খাচ্ছেন তা খাওয়া আপনার জন্য হারাম। জানেন না তো তাহলে শুনুন, সমস্ত বিজ্ঞানিরা সম্মতি জানিয়েছেন যে সিগারেট শরীরের জন্য ক্ষতিকর, সিগারেট ক্যানসারের জন্ম দেয়, সিগারেটের কারনে মানুষ ক্যানসারে ভোগে। তারপরেই সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নেয় যে, সিগারেটের প্রমোশন করতে গেলে অবশ্যই বিশেষ দ্রষ্টব্য দিয়ে বলতে হবে সিগারেট খেলে ক্যানসার হয়, সিগারেট খেলে মৃত্যু হয়, সিগারেট খেলে স্ট্রোক হয়।

cigarette

তো যে সিগারেট খেলে স্ট্রোক হয়, ক্যানসার হয়, মৃত্যু পর্যন্ত হয় সে সিগারেট মাকরুহ্ আর যে পারফিউমে অ্যালকোহল আছে সে পারফিউম হারাম এটা আবার কেমন ধর্মীয় গোঁড়ামি, কে আপনাকে এই ধর্মীয় শিক্ষা দিল? হাদিসের কোন জায়গায় পেয়েছেন পারফিউমে অ্যালকোহল থাকলে তা হারাম আর না থাকলে তা হালাল পারফিউম। কোন বিজ্ঞানী বা ওলামারা সম্মতি বা ফতোয়া দিল যে পারফিউমে অ্যালকোহল থাকলে তা হারাম আর অ্যালকোহল না থাকলে তা হালাল। এমন কোন বিজ্ঞানী সর্বসম্মতিক্রমে এমন কোন বিজ্ঞপ্তি কি দিয়েছে যে পারফিউমে অ্যালকোহলে থাকলে তা হারাম? যদি এমন কোন কথা কেউ বলে থাকে তাহলে কালকে থেকে ব্যবসা ছেড়ে দিব, তারপরও হারামের ব্যবসা করে আমি রোজগার করতে চাই না। প্রত্যেকটা পারফিউম বাইরে থেকে এনে বিক্রি করি, ১০০% গ্যারান্টি দিয়ে বিক্রি করি, যদি নকল প্রমান করতে পারেন তাহলে টাকা ফেরত, নিয়ে যান আপনার টাকা তারপরও নকল পারফিউম আমি বিক্রি করব না। প্রত্যেকটা পারফিউম স্বীকৃত স্টোর থেকে আনা, অরিজিনাল পারফিউম দিব সেটার জন্য গ্যারান্টি দিতে পারি। হারাম ব্যবসা করব বলে এই ব্যবসায় নামি নি। যদি পারফিউমে অ্যালকোহল ব্যবহার করা হারাম হত তাহলে ব্যবসায়ই নামতাম না। আমি সবকিছু জেনেশুনেই নেমেছি, মার্কেটে আসার ৬ মাস আগে থেকেই গবেষনা করে তারপর নেমেছি। শুধুমাত্র কিছু গোঁড়ামির কারনে মানুষজন এসে জিজ্ঞেস করে আপনাদের কাছে হালাল পারফিউম আছে কিনা? আশ্চর্য ব্যাপার! এ কোন অবস্থার মধ্যে দিয়ে আমরা যাচ্ছি?

শুনুন আপনাকে বলছি – মাথায় টুপি পরে এক হাতে জায়নামাজ বগলের নিচে রেখে বাম হাতে যখন সিগারেট ফুঁকেন তখন আপনার হালাল হারামের জ্ঞান থাকে না? গায়ে যখন আঁতর মেখে মসজিদে যান, মসজিদ থেকে বের হয়ে মাথায় টুপিটা পরে এক বগলের নিচে জায়নামাজটা ধরে বাম হাত দিয়ে যখন সিগারেটটা খান তখন আপনার মাথায় হালাল হারামের ব্যাপারটা খেলে না! আঁতর মেখে নামাজ পড়ে বাইরে এসে সিগারেট ফুঁকছেন তখন আপনার হালাল হারাম হয় না? আর আমাদের কাছে এসে বলেন “আপনাদের কাছে কি হালাল পারফিউম আছে?” এ আবার কোন ধর্মীয় গোড়ামী? কে আপনাকে এই ফতোয়া দিল? আগে জানেন হালাল আর হারাম পার্থক্যটা কোথায়। যে সকল ওয়েবসাইটে লিখে রেখেছে হালাল পারফিউম, ওরা তো ইহুদী, খ্রীষ্টান আর হিন্দুদের দালাল। তারা আপনার মাথাটাকে ওয়াশ করে দিয়েছে, তারা আপনাকে বিভ্রান্ত করে দিয়েছে। পারফিউমে যে অ্যালকোহল ব্যবহার করা হয়, সেই পারফিউম আপনি গায়ে মাখেন মুখ দিয়ে খান না। পারফিউম মুখ দিয়ে আপনি সেবন করেন না। পারফিউম গায়ে মেখে আপনি মাতলামি করেন না, মদ খেয়ে আপনি মাতলামি করেন। মদ খাওয়া হারাম, মদে অ্যালকোহল আছে, মদ খাওয়া আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। অ্যালকোহল সেবন করা হারাম, অ্যালকোহল নেয়া হারাম কিন্তু পারফিউমে অনেক উপাদানের সাথে অ্যালকোহলও আরেকটি উপাদান হিসেবে মিশ্রিত হয়ে আছে। সেই পারফিউম আপনি গায়ে ২-৪ বার স্প্রে করেন তাতে আপনিও মাতাল হন না আর আপনার আশেপাশের মানুষজনও মাতাল হয় না, তাহলে ভাই পারফিউম ব্যবহার করা হারাম কিভাবে?

আর যে সিগারেটটা আপনি মাকরুহ্ মনে করে খাচ্ছেন সেই সিগারেটের দ্বারা শুধুমাত্র আপনার ক্ষতি হবে না আপনার আশেপাশের মানুষদেরও যেমন আপনার প্রসুতি স্ত্রী ও আপনার অনাগত সন্তান উভয়েরই ক্ষতি হবে। সুতরাং বুঝে দেখুন, সিগারেট খাওয়া মাকরুহ্ আর অ্যালকোহল আছে এমন পারফিউম ব্যবহার করা হারাম। এটা ঠিক কতটা যুক্তিযুক্ত! দয়া করে একটু চিন্তা করে আমাদেরকে প্রশ্ন করুন। আমরা তো ভাই ভালভাবে ব্যবসা করার জন্যই নেমেছি এবং আমরা আপনাকে সর্বোৎকৃষ্ট জিনিসটাই দেয়ার চেষ্টা করছি। তাহলে কেন আমাদেরকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন? আপনারা বিভ্রান্তিতে ভুগছেন সেটা আপনাদের নিজেদের মধ্যেই রাখেন, মানুষদেরকে কেন শুধুশুধু বিভ্রান্ত করছেন? আমরা আসলেই বুঝতে পারি না এটা কোন ধরনের গোঁড়ামি। আমরা জোর দিয়ে বলতে চাই, পারফিউমের মধ্যে অ্যালকোহল থাকুক আর নাই থাকুক সব হালাল, কোন হারাম পারফিউম নেই।

যার আঁতর ব্যবহার করতে ভাল লাগে তিনি আঁতর ব্যবহার করবেন আর যার পারফিউম ব্যবহার করতে ভাল লাগে তিনি পারফিউম ব্যবহার করবেন কোন সমস্যা নেই। আপনার ব্যবহৃত পারফিউমের গন্ধে যেন আশেপাশের মানুষজন বিরক্ত না হয় তাহলেই চলবে।

বাজে-পারফিউম

আপনি একটি উৎকট গন্ধের পারফিউম ব্যবহার করে মসজিদে যাবেন আর আপনার আশেপাশের মুসল্লিরা ভালভাবে শ্বাস নিতে পারবে না, তাঁদের অস্বস্তি হবে এমন পারফিউম আপনারা ব্যবহার করবেন না। ভালমানের সুগন্ধি ব্যবহার করেন কোন সমস্যা নেই পাশাপাশি আঁতর ব্যবহার করেন কোন সমস্যা নেই। তাতে করে আপনার আশেপাশের মানুষদেরতো কোন ক্ষতি হচ্ছে না! আপনি তো আর অ্যালকোহল সেবন করছেন না, তো সেটা কিভাবে হারাম হল?

এই ব্লগ পোস্টের মাধ্যমে একটা বড় মাছালা আপনাদের কিন্তু দিয়ে দিলাম। আপনারা হয়ত জিজ্ঞেস করতে পারেন ভাই সিগারেট খাওয়া হারাম কেন? সিগারেট খাওয়া হারাম কেননা বিজ্ঞানীরা সর্বস্মতিক্রমে স্বীকৃতি দিয়ে রেখেছে সিগারেট শরীরের জন্য ক্ষতিকর, সিগারেট ক্যানসারের জন্ম দেয়, সিগারেটের কারনে মানুষ ক্যানসারে ভোগে, তাই এখন থেকে যত জায়গায়ই সিগারেটের প্রমোশন দেখবেন সব জায়গাতেই বিশেষ দ্রষ্টব্য দিয়ে লেখা থাকে সিগারেট স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, সিগারেটের কারনে ক্যানসার হয়, সিগারেটের কারনে স্ট্রোক হয়। তার মানে সিগারেট আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর, আর যা আমাদের শরীরের জন্য ক্ষতিকর তা সেবন করা আমাদের জন্য হারাম। অথবা সে জিনিসে অ্যালকোহল আছে সে জিনিস আপনি সেবন করে যদি মাতাল হন, আপনার স্মৃতিভ্রম হয়, আপনার মতিভ্রম হয়, আপনার যদি বিবেকবুদ্ধি লোপ পায় তাহলে তা হারাম। সিগারেট হারাম, মদ হারাম, যে জর্দা গুল আপনি খান সেটাও হারাম।

আপনি যে জর্দা গুল খাচ্ছেন তাতে কি শরীরের ক্ষতি হয় না? অনেককেই দেখা যায় মাড়ির গোড়ায় গুল রেখে দেয়, আপনি কি ভেবেছেন তাতে আপনার মাড়ির ক্ষতি হয় না? মোটকথা, যেসব জিনিস শরীরের জন্য ক্ষতিকর তা হারাম। সামান্য অ্যালকোহল দিলে যে শরীরের ক্ষতি হয় তা তো আমি জানতাম না! যদি অরিজিনাল পারফিউম দেন তাহলে শরীরে কোন ক্ষতি হবে না। যদি চাইনিজ পারফিউ, নকল পারফিউম গায়ে মাখেন তাহলে অ্যালার্জী হয়ে শরীরের বারোটা বেজে যাবে। নকল পারফিউম হারাম হতে পারে কেননা তা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। অরিজিনাল পারফিউম সম্পূর্ন হালাল, কোন ক্ষতি নেই কো দাদা!

এই ব্লগ পোস্টটা ইচ্ছাকৃতভাবে এইভাবে তৈরী করা যাতে করে আপনারা মজা পান, মজা করে পড়েন এবং আপনাদের মাথায় যেন জিনিসগুলো ভালভাবে ঢোকে। আমরা কাউকে ব্যাথা দেয়ার উদ্দেশ্যে এই ব্লগ পোস্টটা তৈরী করি নি। দয়া করে অপরাধ ক্ষমা করবেন, যা বলেছি তা আলবৎ সত্য। ভাল থাকবেন!

About 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *